বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৬:৫৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রূপপুর-বগুড়া গ্রিড লাইনে পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু ঈশ্বরদীতে চলতি মৌসুমে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ঈশ্বরদীতে ইজিবাইক চালকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার ঈশ্বরদী বাজারে গ্রীল কেটে ও তালা ভেঙে চার দোকানে চুরি ঈশ্বরদীতে ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাটে ক্ষুদ্ধ গ্রাহক “গ্রামে বিদ্যুৎ যায় না আসে” ঈশ্বরদীতে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু মাদার তেরেসা গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পেলেন গোপাল অধিকারী ঈশ্বরদীতে গৃহবধু হত্যা ॥ জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন নিহত যুবলীগ নেতা খায়রুল হত্যার বিচার ও খুনিদের ফাঁসির দাবিতে হাজারো নারী পুরুষের বিশাল বিক্ষোভ মিছিল-মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলনে দাবি ফিরোজকে গ্রেপ্তার ষড়যন্ত্রমূলক ও অনাকাঙ্খিত
শিরোনাম :
রূপপুর-বগুড়া গ্রিড লাইনে পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু ঈশ্বরদীতে চলতি মৌসুমে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ঈশ্বরদীতে ইজিবাইক চালকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার ঈশ্বরদী বাজারে গ্রীল কেটে ও তালা ভেঙে চার দোকানে চুরি ঈশ্বরদীতে ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাটে ক্ষুদ্ধ গ্রাহক “গ্রামে বিদ্যুৎ যায় না আসে” ঈশ্বরদীতে ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু মাদার তেরেসা গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পেলেন গোপাল অধিকারী ঈশ্বরদীতে গৃহবধু হত্যা ॥ জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবিতে মানববন্ধন নিহত যুবলীগ নেতা খায়রুল হত্যার বিচার ও খুনিদের ফাঁসির দাবিতে হাজারো নারী পুরুষের বিশাল বিক্ষোভ মিছিল-মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলনে দাবি ফিরোজকে গ্রেপ্তার ষড়যন্ত্রমূলক ও অনাকাঙ্খিত

 

দাশুড়িয়ায় এক মুখোশধারী হাজ্বীর কু-কীর্তি ফাঁস!

সকাল প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৫৯ বার

দাশুড়িয়ায় হঠাৎ কোটিপতি বনে যাওয়া এক মুখোশধারী হাজ্বীর কু-কির্তি ফাঁস হওয়ার ঘটনায় এলাকায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। পাশের বাড়ির এক বিবাহিত যুবতী মেয়ের সাথে পরকিয়া এবং তার সাথে অশ্লীল কথাবার্তার একাধিক কল রেকর্ড ফাঁস হয়েছে। বিপুল অর্থ খরচ করে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় বেশ কয়েকদিন অসুস্থ্য হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন অভিযুক্ত হাজ্বী তুহিন হোসেন। সে দাশুড়িয়া ট্রাফিক মোড় এলাকার নাদের আলী প্রমানিকের ছেলে ও মা পোল্ট্রি ফিডের সত্ত্বাধিকারী। স্থানীয় এলাকাবাসী লম্পট কথিত ওই হাজ্বীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।
এলাকাবাসী ও কলরেকর্ড সুত্রে জানা যায়, দাশুড়িয়া ট্রাফিক মোড়ের পশ্চিম পার্শ্বের বিশাল ভবনের নিচতলায় ‘মা পোল্ট্রি ফিড’ এর ব্যবসা ও উপর তলায় বসবাস করেন হালের কোটিপতি বনে যাওয়া তুহিন হোসেন (৪৫)। সম্প্রতি তিনি পাশের বাড়ির এক বিবাহিত যুবতীকে তার লালসার প্রস্তাব দিয়ে বিপাকে পড়েছেন। স্বামী প্রবাসে থাকা ওই যুবতীর সাথে ব্যবসায়ী হাজ্বী তুহিন হোসেন এর কু-প্রস্তাবসহ বিভিন্ন অশ্লীল কথাবার্তার কল রেকর্ড ভাইরাল হয়ে পড়ে। বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে মড়িয়া হয়ে উঠে তুহিন। এক পর্যায়ে মান-সম্মান হানীর ভয়ে তিনদিন অসুস্থ্য হয়ে শয্যাশায়ী ছিলেন তিনি।
কলরেকর্ডের তথ্য অনুযায়ী জানা যায়, পাশের বাড়ির এক সুন্দরী যুবতীর উপর ললুপ দৃষ্টি পড়ে দাশুড়িয়া ট্রাফিক মোড় এলাকার নাদের আলী প্রমানিকের ছেলে ও মা পোল্ট্রি ফিডের সত্ত্বাধিকারী তুহিন হোসেন এর। প্রায়ই তিনি ছাদের উপর থেকে ওই যুবতীর উপর নজর রাখতেন। এমনকি তার গোসলের নগ্ন ভিডিও ধারণ করে তুহিন।
সম্প্রতি ওই যুবতীর বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে তুহিন তার মনের কামনা-বাসনার কথা বলতে সেখানে যায়। দীর্ঘ সময় তুহিন ওই যুবতীকে একা ঘরে পেয়ে বিভিন্ন কামনা-বাসনা আর আশ্লীল কথাবার্তা বলে এই প্রস্তাব দেয় যে, “ আমি অনেক বড় লোক, অনেক টাকার ব্যবসা করি, কিন্তু মনে শান্তি নাই, তার উপর ইনকাম ট্যাক্সের ঝামেলা ছিল ২ লাখ টাকা ঘুষ দিয়ে সমাধান করেছি, মনে খুউব অশান্তি, অনেক দিন থেকে তোমাকে একটা কথা বলতে চাই, কথা দাও কাউকে বলবে না, মাথায় হাত দিয়ে বল, তোমাকে আমার অনেক ভাল লাগে। সব সময় তোমাকে ফলো করি, পৃথিবীতে যত মেয়ে দেখেছি, তোমার মত সুন্দর মেয়ে আমার জীবনে দেখিনি, তোমাকে আমার অনেক ভাল লাগে, তোমার প্রতি আমার হক আছে, তাই কথা দাও এই কথা কাউকে বলবে না, বছরের পর বছর তোমার স্বামী দেশের বাইরে থাকে, তোমার অনেক কষ্ট আমি জানি, দুইদিনের জীবন, আসো দু’জনে মিলে আনন্দ করি। তুমি বাহিরে আসলে আমি ফুসকি মারি, তোমাকে দেখলে আমার বুকের ভেতর সেই খারাপ লাগে…….। প্রতি উত্তরে মেয়েটি বলে আপনি আমার কাকা হন। আপনি কিভাবে আমাকে এই প্রস্তাব দিলেন। এটা আমি কোনদিনই মানতে পারবো না। সঙ্গে সঙ্গে তুহিন মেয়েটির কাছে ক্ষমা চেয়ে চলে যায়। পরবর্তীতের ঘটনাটি ওই মেয়ে তার মাকে জানালে সে তুহিনকে ফোন করে এর প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আপনি আমার মেয়েকে কি বলেছেন, আপনি না ওর চাচা হন, বাবার মত। সঙ্গে সঙ্গে তুহিন তার ভূল স্বীকার করে বার বার ক্ষমা চায়। উত্তরে ওই মেয়েটির মা বলে “তোকে স্যান্ডেল দিয়ে পিটানো উচিৎ” তুহিন তাতেই রাজি হয়ে বলেন, আপনার যা ইচ্ছে করেন, কিন্তু এই ঘটনা যেন বাহিরে প্রকাশ না পায়, আমি আপনার মায়ের পেটের ভাই, আমাকে রাত ২টার সময় ডাকলে পাবেন, আপনার কোন ক্ষতি কেউ করতে পারবে না, আমার অনেক ক্ষমতা। এক পর্যায়ে মেয়েটির মা উত্তেজিত হয়ে উঠলে তুহিন জানায়, ভাবী এই বিষয়ে আমি অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিলাম। আপনার পায়ে ধরি, আমার সম্মান যেন না যায়। এই কথা কেউ শুনলে আমার অনেক বড় ক্ষতি হবে। প্রতি উত্তরে কান্না করতে করতে মেয়েটির মা বলেন, আপনার জন্য আমি বাড়ি বিক্রি করে চলে যাব। সঙ্গে সঙ্গে তুহিন বলেন, আমার মায়ের …..কসম কেটে বলছি, আমি ভূল করেছি, আপনার কাছে ক্ষমা চাই। এই কথা কেউ জানলে আমি …… খাব।
ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় বিভিন্ন মাধ্যম দিয়ে অসহায় ওই মেয়েটির পরিবারকে হুমকি সহ বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে মরিয়া হয়ে উঠে তুহিন। স্থানীয় কতিপয় পাতি নেতাদের ডেকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে পাহারা বসিয়ে রাখে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় একাধিক সুত্র জানায়, ২ নাম্বার ব্যবসা করে সম্প্রতি অঢেল সম্পত্তির মালিক বনে গেছেন তুহিন। ওমরা হজ্বও করেছেন। কিন্তু নারী কেলেংকারীর মত ন্যাক্কার জনক এই ঘটনার জন্য তুহিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিত।
এসব বিষয়ে অভিযুক্ত তুহিন হোসেন বলেন, এই ঘটনায় তাকে ফাঁসানো হয়েছে। এজন্য ৩ দিন ধরে অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিলাম। আমি এবিষয়ে আর কিছুই বলতে পারছি না, আপনার (সাংবাদিক) সাথে আমার লোক কথা বলবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..